সস্তায় নির্মাণ সামগ্রী কিভাবে কিনবেন?

ভবন নির্মাণের জন্য উপকরন কেনার আগে অবশ্যই বাজার যাচাই করে দেখা উচিত। স্থানীয় ঠিকাদার বা নির্মাণ উপকরন সরবরাহকারী হলেই সে ভালো হবে এমনটা ভাবা ঠিক নয়। সঠিক মূল্যে পন্য কিনতে চাইলে খুচরা বাজার পরিহার করে পাইকারী বাজার কিংবা অবশ্যই রেজিস্টার ডিলার এর কাছ থেকে কিনবেন। তাহলে দামেও কিছুটা সাশ্রয় হবে।

মধ্যসত্ত্বভোগী ত্যাগ করুন – কারো মাধ্যম ব্যবহার করে নির্মাণ উপকরন না কেনাই ভাল। মধ্যসত্ত্বভোগী থাকলে সেখানে পন্যের বাজারমূল্য কম বেশি হতে পারে।

দেশি তৈরি উপকরন কিনুন – দেশি নির্মাণ উপকরন দামে সস্তা মানে ভাল ও টেকসই। নির্মাণ সামগ্রীর প্রায় সবধরনের উপকরন এখন আমাদের দেশেই তৈরি হচ্ছে। দেশের নির্মাণশিল্পে অবদান রাখার পাশাপাশি বিদেশে রপ্তানীও করছে।

পরিবেশ বান্ধব নির্মাণ উপকরন সাশ্রয়ী – এখন অনেক নির্মাতা প্রতিষ্ঠান পরিবেশবান্ধব নির্মান উপকরন ব্যবহার করছে। এগুলো দামে সাশ্রয়ী ও টেকসই। ভবনের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতেও এসব উপকরন অনেক উপযোগী।

চৌকাঠ/দরজা – বাসা বাড়িতে চৌকাঠ/দরজায় দামী কাঠ ব্যবহার না করে প্লাস্টিক, প্লাইউড অথবা ফলস কাঠের দরজা ব্যবহার করলে নির্মাণ খরচ অনেকাংশে কমে যাবে।

দেশে তৈরি স্যানিটারি পন্য কিনুন – স্যানিটারি ও এর সমজাতীয় পন্য দেশেই উৎপাদিত হচ্ছে। ডিজাইন ও মানের দিক থেকে বিদেশি পন্যের সাথে তেমন বড় কোন পার্থক্য নেই। তাই অযথা বিদেশি পন্যের দিকে না ঝুকে সাশ্রয়ী মূল্যে দেশি পন্য কেনাটাই বুদ্ধিমানের কাজ।

বিদ্যুতের তার ও ওয়ারিং সামগ্রী – উন্নতমানের টেকসই ও আগুন প্রতিরোধক বিদ্যুতের তার এখন আমাদের দেশেই তৈরি হচ্ছে। প্রতি কয়েল তারের মূল্য অন্যান্য বিদেশি কোম্পানির তারের চাইতে বেশ সাশ্রয়ী। তাই খরচও কম, টেকেও বেশিদিন।